বিশ্বনাথে দশঘর ইউপি নির্বাচনে ৬৭ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা

নিজস্ব প্রতিবেদক. প্রায় ১৭ বছর সীমানা জটিলতার পর বিশ্বনাথ উপজেলার দশঘর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনকে সামনে রেখে নিজেদের প্রার্থীতার ব্যাপারে ইতিবাচক মনোভাব নিয়ে ৬৯ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।
৪অক্টোবর (রোববার) সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত এ মনোনয়নপত্র জমা দেন, চেয়াম্যান প্রার্থী ৬জন ও ইউপি সদস্য প্রাথী ৪৯জন। আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতিক নিয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি জবেদুর রহমান আর একই দলের বিদ্রোহী প্রার্থী (স্বতন্ত্র) হিসেবে মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা আলহাজ্ব সমছু মিয়া লয়লুছ। এদিকে, বিএনপির সমর্থন নিয়ে ধানের শীষ প্রতীকে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন ইউনিয়ন ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি এমাদ উদ্দিন খান। আবার একই দল বিএনপির সমর্থন না পেয়ে বিদ্রোহী প্রাথী হিসাবে (সতন্ত্র) প্রার্থীর মনোনয়ন জমা দিয়েছেন ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সাধারন সম্পাদক ও সাবেক ইউপি সদস্য আবুল হোসেন ও উপজেলা যুবদলের সাবেক যগ্ম-আহবায়ক তাজুল ইসলামও (সতন্ত্র) প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছেন। তবে তাজুল ইসলাম এমাদ উদ্দিন খানকে সমর্থন দিয়ে মনোনয়ন প্রত্যাহার করবেন বলে জানা গেছে। অপরদিকে, জাতীয় পার্টির একক প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছেন ইউনিয়ন জাতীয়পার্টির সাবেক সভাপতি আব্দুল মন্নান।
নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, রোববার বিকেল ৫টা পর্যন্ত মনোনয়ন জনা নিয়েছেন। এবারে প্রায় ৭০টি মনোনয়ন পত্রের মধ্যে ৬৭জন প্রার্থী করেছেন। এরমধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৬ জন, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১২ জন ও ৯টি ওয়ার্ডের সাধারণ সদস্য পদে ৪৯ জন মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছেন। গত ২৪ সেপ্টেম্বর এ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ৫ অক্টোবর বাছাই, ১২ অক্টোবর প্রত্যাহারের, ১৩ অক্টোবর প্রতিক বরাদ্দ ও ২৯ অক্টোবর ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। দশঘর ইউনিয়নে মোট ভোটার সংখ্যা ১৪ হাজার ১১৮ জন। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ৭হাজার ২০৯ জন ও নারী ভোটার ৬ হাজার ৯০৯ জন। প্রবাসী অধ্যুষিত ও অনেক তাৎপর্যপূর্ণ বিশ্বনাথের দশঘর দশঘর ইউনিয়নের ভোটাররা তাদের নিজেদের কাঙ্কিত ভোটাধিকার প্রয়োগ করে নির্বাচিত করবেন নিজেদের পছন্দের প্রার্থীকে। যিনি নির্বাচিত হবেন, তিনি আগামী ৫ বছর ইউনিয়ন পরিষদের উন্নয়র ও অগ্রগতির দায়িত্ব পালন করবেন সততা ও নিষ্ঠার সাথে এমন আশাবাদী ভোটাররা। প্রচলিত ধারাবাহিকতায় দেখা গেছে পূর্বের নির্বাচন থেকে শুরু করে এই প্রথম কোন দলীয় প্রতিকে নির্বাচন।